Logo

দাফনে থাকবে না স্বজন’ ভয়ে ঘরবন্দী মাহিয়া মাহি!

Reporter Name / ২৪৮ Time View
Update : শনিবার, ৪ এপ্রিল, ২০২০
দাফনে থাকবে না স্বজন’ ভয়ে ঘরবন্দী মাহিয়া মাহি!

করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করছে গোটা বিশ্ব। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ও অঞ্চল লকডাউনে। বাংলাদেশেও অঘোষিত লকডোউনে রয়েছে। এতে বাংলাদেশের মানুষও ঘরবন্দী। অন্যদের মতোই নিজের ঘরে বন্দি জীবন পার করছেন দেশের জনপ্রিয় নায়িকা মাহিয়া মহি। একদমই বাসা থেকে বের হচ্ছেন না মাহি।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে মাহি নিজেকে গৃহবন্দী রাখলেও এর চেয়ে ভয়াবহ কথা বলেছেন। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলে জানাজা হবে না, এমনকি দাফনেও থাকবে না স্বজনরা। শেষবারের মতো প্রিয় মানুষটিকে জড়িয়ে ধরতে পারবেন না। এমনটা মেনেই নিতে পারছেন না চিত্রনায়িকা মাহি।

এ বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এক ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন, গত পাঁচদিন আগে আমি একটি সংবাদ দেখেছি। সংবাদটি হচ্ছে, একজন মানুষ মারা গেছে, সে মানুষটিকে তার আত্মীয়-স্বজন কেউ দেখতে পাননি এবং মৃত ব্যক্তিকে দুজন মিলেই দাফন করেছেন। সেদিন থেকেই আমার উপলব্ধি হয়েছে। আমার ভয় হচ্ছে।

মাহি ভিডিও বার্তায় আরো বলেন, আমরা মুসলমান হিসেবে চিন্তা করতে পারি যে, আমাদের জানাজায় আত্মীয়-স্বজন আসতে পারবে না? কোনো মুসল্লি জানাজা পড়তে পারবেন না? আমরা কি চিন্তা করতে পারি, আমাদের মা-বাবা মারা যাবেন, তাদের শেষবারের মতো দেখতে পারব না, তাদের জড়িয়ে ধরতে পারব না? সেটা কি আমরা কখনো চিন্তা করতে পেরেছি? পারিনি। কিন্তু সেটিই এখন হচ্ছে।

মাহি বলেন, যদি করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান, তাহলে মা-বাবার চেহারা দেখা যাবে না। এটা ভাবার পর থেকে আমি আমার খুব ভয় লাগছে। মাহি আরো বলেন, দেশের মানুষ সচেতন নয়। তাদের বোঝা উচিৎ এই সময়টাকে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলার পাশাপাশি নিয়মিত হাত ধোয়ার পরামর্শ দেন তাদের। এছাড়া বাসা থেকে বের না হওয়ার পরামর্শও দেন তিনি।

মাহিয়া মাহি জাজ মাল্টিমিডিয়ার হাত ধরে ২০১২ সালে ‘ভালোবাসার রঙ’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে অভিনয়জীবন শুরু করে। এরপর বেশকিছু সুপারহিট চলচ্চিত্র উপহার দেন। সবশেষ মাহি অভিনীত ‘অবতার’ সিনেমাটি মুক্তি পায়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর